জগন্নাথপুর টাইমসবুধবার , ১০ মে ২০২৩, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. খেলা
  3. গ্রেট ব্রিটেন
  4. ধর্ম
  5. প্রবাসীর কথা
  6. বাংলাদেশ
  7. বিনোদন
  8. বিশ্ব
  9. মতামত
  10. রাজনীতি
  11. ল এন্ড ইমিগ্রেশন
  12. লিড নিউজ
  13. শিক্ষাঙ্গন
  14. সাহিত্য
  15. সিলেট বিভাগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মালয়েশিয়ায় ১৩ মে বৈশাখী মেলা সফল করতে এমবিএফএর সংবাদ সম্মেলন

Jagannathpur Times BD
মে ১০, ২০২৩ ২:৩৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি :

মালয়েশিযায় ১৩ মে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বৈশাখী মেলা ২০২৩। মেলা সফল করার লক্ষ্যে ৯ মে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানী কুয়ালালামপুরে এক সংবাদ সম্মেলন করেছে, মালয়েশিয়া বাংলাদেশ ফেরাম অ্যাসোসিয়েশন (এমবিএফএ)।

মালয়েশিয়া বাংলাদেশ ফোরাম অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে, ১৩ মে, ২০২৩, শনিবার রাজধানী কুয়ালালামপুর ক্রাফট কমপ্লেক্সে সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলবে বৈশাখী মেলা।

প্রায় এক যুগের ধারাবাহিকতায় এবারও এমবিএফএ এর আয়োজনে সবার জন্য থাকবে উন্মুক্ত। বর্ষবরণের এ উৎসবে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন প্রদেশের প্রবাসী বাঙালি সমবেত হবেন। পোশাকে-আশাকে, সাজ-সজ্জায়, ভোজে-আড্ডায় এই দিনটিতে ষোলো আনা বাঙালিয়ানায় মেতে উঠবে হাজারো প্রবাসী।

প্রবাসের মাটিতে আয়োজিত হলেও এই দিনটি যেন কুয়ালালামপুর ক্রাফট কমপ্লেক্স হয়ে ওঠে লাল-সবুজের এক টুকরো বাংলাদেশ। আয়োজকেরা আশা করছেন গত দিনের ধারাবাহিকতায় এবারও বাঙালি-বাংলাদেশি সমবেত হবেন মালয়েশিয়ার এই বৈশাখী মেলায়।

ক্রাফট কমপ্লেক্সে মূল মঞ্চে শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, সংগীত-নৃত্য-কবিতা, ফ্যাশন শো-স্মৃতিচারণা-কথামালার মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক আয়োজনের পাশাপাশি দিনব্যাপী চলবে নানা আয়োজন।

স্থানীয় বিভিন্ন সংগঠন ও শিল্পীদের পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকেও যোগ দেন প্রখ্যাত সংগীত শিল্পীরা। এবারের আয়োজনে খ্যাতিমান শিল্পী শুভ্র দেব, নতুন প্রজন্মের ক্রেজ দিলশাদ নাহার কনা, চিরকুটের পিন্টু ঘোষ এবং আন্তর্জাতিক ফ্যাশন আইকন বিবি রাসেল কুয়ালালামপুর বৈশাখী মেলায় উপস্থিত হবেন।
লোক সমাগম এবং আয়োজনের ব্যাপকতায় মালয়েশিয়ার বৈশাখী মেলাকেই বাংলাদেশের বাইরে বর্ষবরণের বড় আয়োজন বলে মনে করেন আয়োজকেরা। প্রায় এক যুগ ধরে ধারাবাহিকভাবে অনুষ্ঠিত হওয়ায় কুয়ালালামপুরের বৈশাখী মেলাকে মালয়েশিয়ার মূলস্রোত আর জনপ্রশাসনও অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে।

প্রতি বছর বাংলাদেশের খ্যাতনামা ব্যক্তিদের পাশাপাশি মালয়েশিয়ান মন্ত্রী এবং মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনারসহ প্রশাসনের বিভিন্ন প্রতিনিধি এমবিএফএর বৈশাখী মেলার মূল অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে থাকেন।
দিনব্যাপী মেলায় দেশীয় খাবারের দোকান, পান্তা ইলিশ ছাড়াও দেশীয় পণ্যের স্টলগুলোতে থাকে মানুষের আকর্ষণ।

সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকরা বলছেন, বিদেশ-বিভুঁইয়ে নিজ দেশের কৃষ্টি, সংস্কৃতিকে তুলে ধরতেই মালয়েশিয়া বাংলাদেশ ফোরাম অ্যাসোসিয়েশন (এমবিএফএ) এ মেলার আয়োজন করেছে।

কুয়ালালামপুর বৈশাখী মেলায় প্রতি বছরের মতো এ বছরও প্রবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে বিদেশিরা অংশ নেবেন বলে আশাবাদী অয়োজকরা। দল-মত নির্বিশেষে মালয়েশিয়ায় বসবাসরত বাঙালি-বাংলাদেশিদের বাংলা নববর্ষে বাঙালির এ প্রাণের মেলায় যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে মালয়েশিয়া বাংলাদেশ ফোরাম অ্যাসোসিয়েশন।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে দেশ ও প্রবাসী সবাইকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে মালয়েশিয়া বাংলাদেশ ফোরাম অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নিসার কাদের বলেন, এ আয়োজনে প্রতি বছরের মতো এবারও যুক্ত হবে নতুনতর বিষয় ও ভিন্ন মাত্রার নানা আয়োজন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, মালয়েশিয়া বাংলাদেশ ফোরাম অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নিসার কাদের সাধারন সম্পাদক অনুপম পাল, মেলা বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক মো:আউয়াল ও সদস্য সচিব জাফর ফিরোজ।

মেলার টাইটেল স্পন্সরদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সিবিএল মানি ট্রান্সফারের সিইও মো: সাইদুর রহমান ফরাজী, সানওয়ে মেডিকেল সেন্টারের ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ডেভেলাপমেন্ট ম্যানেজার মি:জাষ্টিন চিয়া, ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের কান্ট্রি ম্যানেজার মো: শহীদুল ইসলাম।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, ফোরাম অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী সদস্য মো: মাসুদুর রহমান, মহুয়া রায় ও শহীদুল ইসলাম।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।