জগন্নাথপুর টাইমসমঙ্গলবার , ২৮ মার্চ ২০২৩, ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. খেলা
  3. গ্রেট ব্রিটেন
  4. ধর্ম
  5. প্রবাসীর কথা
  6. বাংলাদেশ
  7. বিনোদন
  8. বিশ্ব
  9. মতামত
  10. রাজনীতি
  11. ল এন্ড ইমিগ্রেশন
  12. লিড নিউজ
  13. শিক্ষাঙ্গন
  14. সাহিত্য
  15. সিলেট বিভাগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নিউইয়র্কের একটি রাস্তার নামকরণ করা হয়েছে বাংলাদেশ স্ট্রিট 

Jagannathpur Times BD
মার্চ ২৮, ২০২৩ ১০:২২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিউজ ডেস্ক :

বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবসে নিউইয়র্কের একটি ব্যস্ততম রাস্তার নামকরণ করা হয়েছে বাংলাদেশ স্ট্রিট। জ্যাকসন হাইটসের সেভেনট্রি থার্ড স্ট্রিট এখন থেকে এই নামে পরিচিত হবে। এ উপলক্ষে রোববার (২৬ মার্চ ২০২৩)  দুপুরে সেখানে একটি অনুষ্ঠানের আয়জন করা হয়। এতে মুলধারার রাজনীতিবিদসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি যোগ দেন।

স্থানীয় ২৫ ডিস্ট্রিক্টের কাউন্সিলম্যান শেখর কৃষ্ণানের উদ্যোগে নিউইয়র্কের বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকার এই রাস্তার নতুন নামকরণ করা হলো। এমনিতেই ঐ এলাকাটি উৎসবমুখর থাকে বাংলাদেশিদের পদচারণায়। নতুন নামকরণের ফলে প্রবাসী বাংলাদেশিদের উচ্ছ্বাস ছিল অনেক বেশি। অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসেছিলেন ইউএস কংগ্রেস ওম্যান গ্রেস ম্যাংসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা।

জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশি বিজনেস অ্যাসোসিয়েশনের (জেবিবিএ) নেতারা অনেকদিন ধরে, রাস্তাটির নামকরণ নিয়ে কাজ করে আসছিলেন। নিউইয়র্কে দুটি এলাকায় লিটল বাংলাদেশ এভিনিউ নামকরণের পর এবার গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তাটির নাম হওয়ায় খুশি প্রবাসী বাংলাদেশিরা। তারা বলছেন, এভাবেই যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশিদের অবদান স্বীকৃতি পাচ্ছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেবিবিএ এর সাধারণ সম্পাদক ফাহাদ সোলায়মান, কামরুজ্জামান কামরুল, গিয়াস আহমেদ, আবু জাফর মাহমুদ, রুহুল আমিন সিদ্দিকী, মোহাম্মদ আলী, মোর্শেদ আলম, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, শাহানা রহমান, ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, মাওলানা কাজী কায়্যূম, মাসুদ রানা তপন, তারেক হাসান খান, মোহাম্মদ নমি, মনিকা চৌধুরী, নাঈমা খান, ইভান খানসহ জেবিবিএ’র দুই গ্রুপের নেতারা।

শেখর কৃষ্ণান বাংলাদেশ স্ট্রিট নামকরণ করার বিষয়টি বাংলাদেশিদের সাফল্য হিসাবে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, ‌‘এই স্ট্রিটের নামকরণ বাংলাদেশ স্ট্রিট করতে পেরে আমরা আনন্দিত। বাংলাদেশি কমিউনিটির এখানে বিশেষ অবদান রয়েছে। এই অবদান তারা ধারাবাহিকভাবে রেখে চলেছেন। ৭৩ স্ট্রিট হচ্ছে বাংলাদেশিদের হার্ট। এখানে অনেক বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এখানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশিরা আসেন। তাদের কমিউনিটিতে অনেক অবদান রয়েছে। তাদের জন্য এটি করতে পেরে আমি আনন্দিত।’

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ক্র্যাটলিনা ক্রুস, গ্রেস ম্যাং, নিউইয়র্ক স্টেটের জেসিকা গঞ্জালেস, সিটি কাউন্সিলম্যান স্টিভেন রাগা, মাইকেল জিয়ানারিস নিউইয়র্ক স্টেটের সিনেটর।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।