জগন্নাথপুর টাইমসশুক্রবার , ৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. খেলা
  3. গ্রেট ব্রিটেন
  4. ধর্ম
  5. প্রবাসীর কথা
  6. বাংলাদেশ
  7. বিনোদন
  8. বিশ্ব
  9. মতামত
  10. রাজনীতি
  11. ল এন্ড ইমিগ্রেশন
  12. লিড নিউজ
  13. শিক্ষাঙ্গন
  14. সাহিত্য
  15. সিলেট বিভাগ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে লাইব্রেরীর বিকল্প নেই- জগন্নাথপুরে মির্জা লাইব্রেরী পরিদর্শনকালে পরিকল্পনা মন্ত্রী

Jagannathpur Times BD
ডিসেম্বর ৮, ২০২৩ ১০:৩৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, জগন্নাথপুর :

জগন্নাথপুর পৌরশহরে মির্জা মিউজিয়াম লাইব্রেরী পরিদর্শন করেছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান ।

শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর ২০২৩) জগন্নাথপুর পৌরশহরের ঐতিহ্যবাহী মির্জা মিউজিয়াম লাইব্রেরী পরিদর্শন করেছেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি।

জগন্নাথপুর পৌরশহরে মির্জা মিউজিয়াম লাইব্রেরী পরিদর্শনকালে এসময় উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, শান্তিগন্জ আওয়ামীলীগের সহসভাপতি সাদাত মান্নান অভি, সমাজসেবক মির্জা হাফিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক মাসুম আহমদ, মির্জা জুবায়ের জামান, মির্জা আহসানুর রেজা, পৌর যুবলীগ নেতা মির্জা আব্দুল ওয়াদুদ, মির্জা হামজা, মির্জা তামিম, মির্জা রুমেল, পৌর ছাত্রলীগনেতা মির্জা আনিসুর রেজা, মির্জা তামজিদ, মির্জা রাহি, মির্জা মুশফিক আহমেদ, ছাত্রলীগনেতা মির্জা ওহি, মির্জা মোতাহির কুরুশ আলী, সাদী আহমদ, ইসলাম প্রমুখ।

মন্ত্রী লাইব্রেরিতে আসলে তাঁকে স্বাগত জানান- মির্জা আতাউর রহমান বেগ ও অন্যান্যরা ।

এসময় মন্ত্রী এ লাইব্রেরীতে অবস্থানকালে ঘুরে ঘুরে সেল্পে সাজানো দুর্লভ বইগুলো দেখে সন্তুষ প্রকাশ করেন। পরে তিনি
পরিদর্শনবহিতে স্বাক্ষর করেন এবং গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য লিপিবদ্ধ করেন।

পরে মন্ত্রী বলেন- “পাঠাগার” হলো বই, পুস্তিকা ও অন্যান্য তথ্য সামগ্রির একটি সংগ্রহশালা, যেখানে পাঠকের প্রবেশাধিকার থাকে এবং পাঠক সেখানে পাঠ, গবেষণা কিংবা তথ্যানুসন্ধান করতে পারেন।

তবে গ্রন্থাগারের মূল লক্ষ্য থাকে তথ্যসংশ্লিষ্ট উপাদান সংগ্রহ, সংরক্ষণ, সংগঠন, সমন্বয় করা।
যে কাজটি মির্জা আতাউর রহমান বেগ দীর্ঘদিন যাবত তিলে তিলে বই সংগ্রহ করে জগন্নাথপুর পৌরশহরের প্রাণ কেন্দ্রে মির্জা মিউজিয়াম ও লাইব্রেরী গড়ে তুলেছেন। এটি উনার জীবনের বিশাল ত্যাগ এবং প্রাপ্তি ।

এরকম সৃজনশীল কাজের জন্য আমি তাকে এবং তার সাথে সম্পৃক্ত সবাইকে অভিনন্দন জানাই।
বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ও সমৃদ্ধশালী জনপদ গড়ে তুলতে এরকম পাঠাগার/ লাইব্রেরী বা মিউজিয়ামের বিকল্প নেই।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।