জগন্নাথপুর টাইমসশনিবার , ১৩ জানুয়ারি ২০২৪, ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. খেলা
  3. গ্রেট ব্রিটেন
  4. ধর্ম
  5. প্রবাসীর কথা
  6. বাংলাদেশ
  7. বিনোদন
  8. বিশ্ব
  9. মতামত
  10. রাজনীতি
  11. ল এন্ড ইমিগ্রেশন
  12. লিড নিউজ
  13. শিক্ষাঙ্গন
  14. সাহিত্য
  15. সিলেট বিভাগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ব্রিটেনে অনেক অনলাইন ফার্মেসী প্রেসক্রিপশন ছাড়াই ওষুধ দিচ্ছে

Jagannathpur Times BD
জানুয়ারি ১৩, ২০২৪ ৯:০৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

এসকেএম আশরাফুল হুদা  :

অনলাইনে প্রেসক্রিপশন ছাড়াই এমন অনেক ধরনের ওষুধ বিপদজনক পরিমাণে বিক্রি হচ্ছে, যেসব ওষুধ ব্রিটিশ সরকারের স্বীকৃত চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ছাড়া কেনা সম্ভব নয়। এর ফলে জনস্বাস্থ্য হুমকির মুখে পড়ছে বলে মনে করে রয়েল কলেজ অফ জিপিজ।

বিবিসির অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে এই নারীর ছদ্মনাম দেয়া হয়েছে সোফি। সরকারের অনুমোদিত একটি অনলাইন ফার্মেসী থেকে তিনি মিথ্যা তথ্য দিয়ে ওজন কমানোর ওষুধ কিনেছেন, যা প্রেসক্রিপশন ছাড়া কেনা যায়না। ওষুধ কেনার আগে সোফিকে তাঁর ছবি দেখাতে হয়নি, কারো সাথে কথা বলতে হয়নি, কিংবা তাঁর ওজন প্রমাণ করতে কোনো প্রমাণ দিতে হয়নি।

ওষুধ বিষয়ক সরকারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা জেনারেল ফারমাসিউটিকেল কাউন্সিল বলেছে, অনলাইন ফার্মেসিকে ওষুধ বিক্রির আগে প্রয়োজনীয় সব ধরনের তথ্য সংগ্রহ করতে হবে, যাতে নিশ্চিত করা যায় সংশ্লিষ্ট ওষুধ রোগীর জন্য নিরাপদ। কিন্তু অনলাইন ফার্মেসীগুলো এসব প্রক্রিয়া অনুসরণ করছে কিনা, তা তদন্ত করতে গিয়ে বিবিসির অনুসন্ধানী দল তিন ধরনের ওষুধ কেনে অনলাইন ফার্মেসী থেকে, যেসব ওষুধ কিনতে প্রেসক্রিপশন লাগে। ওষুধের মধ্যে ছিল পেইন কিলার, এংজাইটির ওষুধ, এবং ঘুমের ওষুধ। ১৬শ’র বেশী প্রেস্ক্রিপশন ওষুধ কিনতে পেরেছে বিবিসির অনুসন্ধানী দল।

১৩টি অনলাইন ফার্মেসী সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির জিপির সাথে কথা না বলে, তাঁর মেডিক্যাল রেকর্ড না দেখে এবং প্রেসক্রিপশন ছাড়া বিবিসির দলের কাছে ওষুধ বিক্রি করতে অস্বীকৃতি জানায়। অবশ্য অন্য ২০টি অনলাইন ফার্মেসী থেকে ওষুধ কিনতে এসব যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয়নি।

কর্নওয়ালের বাসিন্দা কেইটি কোরিগান অনলাইনে কেনা ওষুধ দুর্ঘটনাবশতঃ ওভারডোজ গ্রহণ করে ২০২০ সালে মৃত্যুবরণ করেন। ঘাড়ের ব্যাথায় আক্রান্ত হয়ে পেইনকিলারে আসক্ত হয়ে পরেছিলেন ৩৮ বছর বয়স্ক কেইটি। কেইটির মা ক্রিস্টিন টেইলর অনলাইনে অসিধ কেনার নিয়ম-কানুন কথিক করার আহবান জানাচ্ছেন।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা জেনারেল ফারমাসিউটিকেল কাউন্সিল এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অপব্যবহারের সম্ভাবনা আছে, এমন ওষুধ বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন না করে অনলাইনে সরবরাহ করার উপযুক্ত নয়। পেশাগত আচরণ যেসব ক্ষেত্রে লঙ্ঘিত হয়, সেসব ক্ষেত্রে আমরা বিধিবদ্ধ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। কিন্তু মৃত্যুর আগে কেইটি এমন সব উচ্চ ঝুঁকির ওষুধ অনলাইনে কিনতে পেরেছিলেন, যেগুলো এখনও অনলাইনে কেনা যায়।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।