জগন্নাথপুর টাইমসরবিবার , ৮ অক্টোবর ২০২৩, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. খেলা
  3. গ্রেট ব্রিটেন
  4. ধর্ম
  5. প্রবাসীর কথা
  6. বাংলাদেশ
  7. বিনোদন
  8. বিশ্ব
  9. মতামত
  10. রাজনীতি
  11. ল এন্ড ইমিগ্রেশন
  12. লিড নিউজ
  13. শিক্ষাঙ্গন
  14. সাহিত্য
  15. সিলেট বিভাগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মানোন্নয়নে সরকারের সহযোগিতা প্রয়োজন- সেমিনারে বক্তারা

Jagannathpur Times BD
অক্টোবর ৮, ২০২৩ ৭:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

যুক্তরাষ্ট্র সংবাদদাতা :

 

উচ্চশিক্ষার প্রসার ও গুণগত মানোন্নয়নে বাংলাদেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজের গুরুত্বারোপ করেছেন উচ্চশিক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিশিষ্টজনরা।

গত শুক্রবার (৬ অক্টোবর) যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইউনিভার্সিটি অফ ম্যাসাচুসেটস’র বস্টন ক্যাম্পাসে ‘ইন্টারন্যাশনাল সাস্টেইনেবল ডেভেলপমেন্ট ইন্সটিটিউট’র (আইএসডিআই) উদ্যোগে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

আয়োজিত সেমিনারেয়তার ওপর গুরুত্ব দেন তারা। দিনব্যাপী এ সেমিনারে বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক, শিক্ষার্থী এবং বাংলাদেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শীর্ষ কর্মকর্তা ও শিক্ষকরা অংশ নেন।

সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্থনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান।

আলোচনায় অংশ নিয়ে বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষার প্রসারে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালগুলোর অবদানের কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অবশ্যই শিক্ষার গুণগত মান বজায় রাখার দিকে মনযোগী হতে হবে। এ ছাড়া, গবেষণা ও উদ্ভাবনী শিক্ষাকে উৎসাহিত করতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উদ্যোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

 

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের প্রতিনিধি ডক্টর আবু তাহের বলেন, সংখ্যা বিবেচনায় না নিয়ে শিক্ষার সামগ্রিক পরিবেশের মান বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।

সেমিনারে প্যানেল আলোচক ছিলেন নিউ ইংল্যান্ড উচ্চ শিক্ষা বিষয়ক কমিশন-এনইসিএইচই’র (NECHE) ভাইস প্রেসিডেন্ট ড. ক্যারোল অ্যান্ডারসন।

আন্তর্জাতিক মানের পাঠ্যক্রম প্রণয়নের পাশাপাশি কিভাবে উচ্চশিক্ষার স্বীকৃতি প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর গ্রহণযোগ্যতা বাড়ানো যায়, যাতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ব্র্যান্ডিং করা এবং র‌্যাঙ্কিংয়ে একটি গ্রহণযোগ্য অবস্থান অর্জন করা সম্ভব হয়, এ নিয়েও আলোচনা করেন প্যানেলিস্টরা।

সেমিনারটিতে সাম্প্রতিক প্রযুক্তি বিশ্বে সাড়া জাগানো কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা এআই, মেটাভার্স প্রযুক্তির বিকাশ, নৈতিক অবস্থান, আইনি চ্যালেঞ্জ এবং ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেন বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক ও গবেষকরা। নতুন এসব প্রযুক্তি পরবর্তী স্তরের উচ্চ শিক্ষায় কিভাবে ব্যবহার করা যায়, তার প্রস্তুতি নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা করেন অন্যতম কী-নোট স্পিকার ম্যাসাচুসেট্স ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি (এমআইটি)’র অধ্যাপক ড. অনন্ত আগরওয়াল।

বাংলাদেশের নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয় এবং আমেরিকান ইউনিভার্সিটি অফ বাংলাদেশ’র (এআইইউবি) সহযোগিতায় বস্টনভিত্তিক থিঙ্কট্যায়ক ‘ইন্টারন্যাশনাল সাস্টেইনেবল ডেভেলপমেন্ট ইন্সটিটিউট’ তথা আইএসডিআই’র এ সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক ইকবাল ইউসুফ এবং ইউনিভার্সিটি অফ ম্যাসাচুসেটসের অধ্যাপক ডক্টর নুরুল আমান।

এ ছাড়াও বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সঙ্গে আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর যোগাযোগ, গবেষণা সহযোগিতাসহ ছয়টি ভিন্ন ভিন্ন বিষয়ের উপরে আলোচনায় অংশ নেন নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ড. জুনায়েদ কামাল আহমেদ, এআইইউবি’র ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ইশতিয়াক আবেদীন, ইউনিভার্সিটি অফ ম্যাসাচুসেট্স ডার্টমাউথের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ করিম, ফ্রেমিংহাম স্টেট ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. স্যান্ড্রা রহমান এবং ইন্টারন্যাশনাল সাস্টেইনেবল ডেভেলপমেন্টের সিনিয়র রিসার্চ ফেলো ড. আবদুল্লাহ শিবলি প্রমুখ।

যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, প্রশাসক, গবেষক এবং স্টেক হোল্ডারদের পারস্পরিক সহযোগিতা ও  অভিজ্ঞতা বিনিময় কর্মসূচির মাধ্যমে উচ্চশিক্ষার প্রসারে এমন আয়োজনের গুরুত্ব অপরিসীম বলে অংশগ্রহণকারীরা উল্লেখ করেছেন।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।