জগন্নাথপুর টাইমসশনিবার , ১ জুলাই ২০২৩, ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. খেলা
  3. গ্রেট ব্রিটেন
  4. ধর্ম
  5. প্রবাসীর কথা
  6. বাংলাদেশ
  7. বিনোদন
  8. বিশ্ব
  9. মতামত
  10. রাজনীতি
  11. ল এন্ড ইমিগ্রেশন
  12. লিড নিউজ
  13. শিক্ষাঙ্গন
  14. সাহিত্য
  15. সিলেট বিভাগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হাওরাঞ্চলে আরও বড় বড় উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করার আকাঙ্খা রয়েছে— পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি

Jagannathpur Times BD
জুলাই ১, ২০২৩ ৬:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুনামগন্জ :

পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেছেন, বাংলাদেশ এগিয়েছে, আমরা দেশের চেহারা বদলে দেবার চেষ্টা করছি, তবে অবকাঠামো উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের মানসিক অবস্থার পরিবর্তনের প্রয়োজন আছে।

শনিবার (১ জুলাই ২০২৩) বিকালে সুনামগন্জ শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরী’র আয়োজনে শিল্পকলা একাডেমী’র হাছন রাজা মিলনায়তনে গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান।

অনুষ্ঠানে জাতীয় পদকপ্রাপ্ত আট গুণীজনকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এঁরা হলেন স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত অধ্যাপক ডা. এম.ইউ. কবীর চৌধুরী, তিনবার শ্রেষ্ঠ গীতিকার হিসাবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জনের অধিকারী মনিরুজ্জামান মনির, একুশে পদকপ্রাপ্ত লোকশিল্পী সুষমা দাস, একুশে পদক, শিশু একাডেমী ও বাংলা একাডেমী পুরস্কার অর্জনের অধিকারী ঝর্ণা দাস পুরকায়স্থ, বাংলা একাডেমি পুরস্কার অর্জনের অধিকারী কবি ও গবেষক ড. মোহাম্মদ সাদিক, বেগম রোকেয়া জাতীয় পদকপ্রাপ্ত নারীনেত্রী শীলা রায়, বাংলা একাডেমি পুরস্কার অর্জনের অধিকারী ধ্রুব এষ ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জনের অধিকারী সেজুল হোসেন।

শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরী’র সভাপতি জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরী’র সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক খলিল রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, সংসদ সদস্য ও বিরোধী দলীয় হুইপ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখ্ত, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরী’র সহসভাপতি সুখেন্দু সেন।

 

অনুষ্ঠানে পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বর্তমান সরকারের সময়কালের নানা উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরে বলেন, সুনামগঞ্জের উন্নয়ন দক্ষিণ দিকে হওয়ায় শহর আরও বড় হচ্ছে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়, জামালগঞ্জ-ধর্মপাশা উড়াল সড়ক ও দিরাই-শাল্লা আজমিরিগঞ্জ সড়কের কাজ শেষ হবার পর হাওরাঞ্চলে আরও বড় বড় উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করার আকাঙ্খা রয়েছে তাঁর।

অনুষ্ঠানের অতিথিরা সংবর্ধিতদের  ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র তুলে দেন। সংবর্ধিতদের মধ্যে ড. মোহাম্মদ সাদিক, সুষমা দাশ, শীলা রায় ও সেজুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। অন্যদের পক্ষে পরিবারের সদস্যরা ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র গ্রহণ করেন।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।